মুগদায় স্টার টিভি ক্যাবল নেটওয়ার্কের কর্মীদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা

star-tv-cable-networkনিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর মুগদা এলাকার স্টার টিভি ক্যাবল নেটোয়ার্কের কর্মীদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল রাতে (১১ ডিসেম্বর) আনুমানিক সাড়ে ৮টার দিকে শাওন ক্যাবল নেটওয়ার্কের স্বপনের সন্ত্রাসী বাহিনী আলি ও তার সহযোগীরা এ হামলা চালায় বলে জানা গেছে। হামলার পর পুরো এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঘটনার দিন একটি এ্যাপার্টমেন্টের ডিস সংযোগ বিল আনতে যায় স্টার টিভি ক্যাবল নেটওয়ার্কের রফিক। ৭ তলা ভবনের ঐ বিল্ডিং থেকে নীচে নামার সময় রফিকের সাথে কথিত সন্ত্রাসী আলীর বাকবিতন্ডা হয়, এক পর্যায়ে আলি ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীদের মারধোরের শিকার হন রফিক। এ সময় তারা বিভিন্ন রকমের হুমকি দেয় এবং এলাকা থেকে ক্যাবল ব্যবসা গুটিয়ে নিতে হুমকী দেয়। রফিক কোনো প্রতিবাদ না করে সে স্থান ত্যাগ করে। পরে অফিসে এসে তার মালিক এ্যাডভোকেট এ.এফ.এম রিজাউর রহমান রুমেলকে বিষয়টি অবহিত করে। তাৎক্ষনিক ভাবে উনি ঘটনাস্থলে যান এবং বিষয়টি সুরাহা করার চেষ্টা করেন। কিন্তু আলি উত্তেজিত হয়ে সে আরো হুমকি প্রদান করে এবং অকথ্য ভাষায় গালাগাল দিতে থাকে।

উল্লেখ্য, স্টার টিভি ক্যাবল নেটওয়ার্কের স্বত্বাধিকারী স্থানীয় স্যাটেলাইট ক্যাবল ব্যবসায়ী এ্যাডভোকেট এ.এফ.এম রিজাউর রহমান রুমেল বৈধভাবে ব্যাবসা করে আসছেন প্রায় ২ যুগেরও বেশী।

ঘটনার পর সেখানে উপস্থিত হন স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দরা । তাদেরকেও পরোয়া না করে আলী ও তার সঙ্গীরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। পরে এর সুরাহা করার আশ্বাসে এ্যাডভোকেট এ.এফ.এম রিজাউর রহমান রুমেল সে স্থান ত্যাগ করে। সেদিন রাতে আবার ফোনে উনাকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিয়ে আসছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

উপায়ান্তর না দেখে রাতে মুগদা থানায় সন্ত্রাসী আলির বিরুদ্ধে একটি এজাহার করেন এ্যাডভোকেট এ.এফ.এম রিজাউর রহমান রুমেল। বর্তমানে আমোক্তার নামা বলে ব্যাবসাটি তার স্ত্রী সৈয়দা হাসিনা রহমান পরিচালনা করেন।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে মুগদা থানার ওসি মোঃ এনামুল হক বলেন, ঘটনার বিষয়ে একটি অভিযোগ দেয়া হয়েছে। আমরা সেই অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি। বিষয়টি মূলত ডিস ব্যবসার প্রাধান্য বিস্তার নিয়ে ঘটেছে বলে প্রাথমিক তদন্তে পাওয়া গেছে। আমরা এখনো তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছি, পূর্ণ তথ্য পেলেই অভিযোগটি এজহার আকারে আমরা গ্রহণ করবো।

উল্লেখ্য, সন্ত্রাসী আলি মুগদার আরেক ক্যাবল ব্যাবসায়ী শাওন ক্যাবল নেটোয়ার্কের স্বত্তাধীকারি স্বপনের ভাগিনা। সেই সুবাদে স্থানীয় স্বপনের ছত্রছায়ায় এই সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়ে আসছে।

এছাড়া একচ্ছত্রভাবে ব্যবসায়ি আধিপত্য বিস্তারের জন্য গত কিছুদিন যাবত বিভিন্ন ভাবে ঐ আলি ষ্টার টিভি ক্যাবল নেটোয়ার্কের ফাইবার, ক্যাবল ও বিভিন্ন মালামাল কেটে নিয়ে যাচ্ছে ও অন্যান্য যন্ত্রাংশ চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে এবং ষ্টার টিভি ক্যাবল নেটোয়ার্কের সকল গ্রাহকদের এই বলে হুমকি দিচ্ছে যে, এখন থেকে শাওন ক্যাবল নেটোয়ার্ক ছাড়া অন্য কোন লাইন চলবেনা ।

ক্যাবল অপারেটরদের একটি আইন থাকলেও তা কেউই মানছে না।

Pin It